মাহফুজুর রহমান ও হেলেনা জাহাঙ্গীরের ফোনালাপ ফাঁস!

0
70
মাহফুজুর রহমান ও হেলেনা জাহাঙ্গীরের ফোনালাপ ফাঁস!

সদরুল আইন: নারী উদ্যোক্তা ও টিভি টকশো উপস্থাপিকা হেলেনা জাহাঙ্গীর গত ২৯ মে এক ফেসবুক বার্তায় ড. মাহফুজুর রহমানের সাথে ডুয়েট গান করার প্রস্তাব পেয়েছেন বলে জানিয়ে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন।

তিনি লেখেন, ‘এইমাত্র মাহফুজুর রহমানের সাথে ডুয়েট গান করার অফার পেলাম। কি করবো বুঝতে পারছি না। বন্ধুদের পরামর্শ চাই।’

এর পরপরেই শুরু হয়ে যায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের স্ট্যাটাস নিয়ে আলোচন সমালোচনার ঝড়। হেলেনা জাহাঙ্গীরের ওই স্ট্যাটাস নিয়ে চলা আলোচনা সমালোচনার মধ্যেই শনিবার (১ জুন) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ফোনালাপের অডিও ছড়িয়ে পড়ে।

ওই অডিও শুনে বোঝা যায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের দেয়া স্ট্যাটাস নিয়ে এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান ক্ষুব্ধ হয়ে আছেন এবং তিনি নিজের রাগ নিয়ন্ত্রণ না করতে পেরে কড়া ভাষায় কথা বলছেন হেলেনা জাহাঙ্গীরের সাথে।

এ সময় ফোনে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে মাহফুজুর রহমান বলেন- আমাকে নিয়ে ফেসবুকে আপনাকে স্ট্যাটাস কে দিতে বলছে? মানুষ অফার করলেই ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিবেন? ফাজিল মার্কা কাজ করেন।

কতটুকু ফাজিল হইলে মানুষ এমন কাজ করে। আপনি এর আগেও ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়ে আমাকে ডুবাইছেন। কোয়ালিটি থাকলে নিজের পায়ে দাঁড়ান। আপনি কি গাঁধা। যে একজন বললেই লিখবেন।

আপনাকে কি আমি রিকুয়েস্ট করছি যে আপনার সাথে ডুয়েট করবো? আপনার মতো গাঁধা দুনিয়ার লোক না। পারলে নিজের কোয়ালিটি দিয়ে পপুলার হন।

আপনি কি আমার নাম জড়ানোর আগে আমাকে জিজ্ঞাসা করেছেন? এবং শেষে আরো রেগে গিয়ে বলেন হেই চুপ। এরপর ফোন রেখে দেন।

ফোনালাপে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, আমাকে কয়েকজন সাংবাদিক অফারটা করেছে। সেখানে তো লেখা নেই যে আপনি আমাকে অফার করেছেন।

তবে ফোনালাপের বিষয়ে হেলেনা জাহাঙ্গীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ওই অডিওটি আমার নয়। বরং মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে আমার সম্পর্ক অনেক ভালো।

তিনি আমাকে এভাবে রেগে রেগে কখনোই কথা বলতে পারেন না। মাহফুজ ভাই খুব ভালো একজন মানুষ। মাহফুজ ভাই আমার এডভাইজর। কেউ হয়তো আমার আর মাহফুজুর রহমান ভাইয়ের সম্পর্ক নষ্ট করার জন্য এই অডিও ফাঁস করেছে।’