সিলগালা করা হলো বিজিএমইএ ভবন

0
35

কাগজ প্রতিবেদক: রজধানীর হাতিরঝিল লেকে অবৈধভাবে নির্মিত বিজিএমইএ ভবন সিলগালা করা হয় । আজ সন্ধ্যা ৭:২০ মিনিটে ভবনটি সিলগালা করা হয়। আগে বলা হয়েছিল, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী বিজিএমইএ ভবন থেকে মালামাল সরিতে নিতে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সময় বেধে দেয়া হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে মালামাল সরাতে ব্যর্থ হলে ভবনটি সিলগালা করে দেয়া হবে।
এর আগে জানানো হয়, বিজিএমইএর বহুতল ভবন ডিনামাইট ব্যবহারে ভাঙা হবে। ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানি ঠেকাতে ডিনামাইট বা নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ পদ্ধতি ব্যবহার করা হবে। এ কাজে সহায়তা করবে চায়না এক্সপার্টরা।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার। মঙ্গলবার দুপুরে তিনি বলেন, ডিনামাইট বা নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ পদ্ধতি ব্যবহার করে গুঁড়িয়ে দেয়া হবে তৈরি পোশাক মালিক ও রফতানিকারক সমিতির প্রধান কার্যালয়।
এটি সম্পন্ন হলে বাংলাদেশে প্রথমবারেট মতো ডিনামাইট ব্যবহার করে ভবন ভাঙার ঘটনা ঘটবে। ডিনামাইট দিয়ে বিস্ফোরণের পর ভবনটি সম্পূর্ণ ধসে পড়বে।
এ বিষয়ে রাজউকের পরিচালক (প্রশাসন) খন্দকার ওলিউর রহমান বলেন, সেনাবাহিনীর সহায়তায় এ ভবনটি অপসারণের কাজ করা হবে। এর আগে র্যাংগস ভবন ভাঙতে গিয়ে প্রাণহানি ঘটে। তবে এ ভবন ভাঙতে ডিনামাইট বা নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ পদ্ধতি ব্যবহার করা হবে। এ কাজে সহায়তা করবে চায়না এক্সপার্টরা।
এ বিষয়ে খন্দকার ওলিউর রহমান বলেন, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ীই আমরা বিজিএমইএ ভবনের অফিস অপসারণের কাজ শুরু করেছি। আমরা যে ভবন অপসারণ শুরু করেছি এটাও ভবন ভাঙার অংশ। তাছাড়া এখানে টেকনিক্যাল ও ম্যানেজমেন্টের বিষয় আছে এগুলো শেষ হলেই আমরা ভবন ভাঙার কাজ শুরু করবো। এই বড় ভবনের নানা বিষয় দেখতে হচ্ছে, এখানে অনেকগুলো ব্যাংক আছে সেটাও দেখতে হচ্ছে।