আ’লীগ নেতার উঠুন বৈঠকে যুবলীগের গুলি: নিহত ২, গুলিবিদ্ধ ৮

0
95
আ'লীগ নেতার উঠুন বৈঠকে যুবলীগের গুলি: নিহত ২, গুলিবিদ্ধ ৮

কাগজ প্রতিনিধি: ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায় আজ শনিবার দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় গুলিতে দুজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ১৪জন।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ হয়েছে। কাইচাইল ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন ওরফে ঠান্ডুর সঙ্গে তাঁর চাচাতো ভাই যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হানিফ মিয়া ওরফে হৃদয়ের বিরোধ চলছিল। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রায়ই ওই দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হচ্ছে।
নিহত দুজন হলেন, রওশন আলী মিয়া (৫২) ও তুহিন মিয়া (২৫)। এ ঘটনায় আহত রায়হান উদ্দিন মিয়া (৬৫), আনিস মীর (২০), গোলাম রসুল বিপ্লব (৩০), গোলাম মওলা (৩০), আবুল কালাম (৩৫) ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অপরদিকে আনিস মিয়া (২৪), ফারুক মাতুব্বর (৪০), চুন্নু মিয়া (৪৮), সুমন মিয়া (২৮) ও বাবলু মিয়াকে নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সংঘর্ষের ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন বলেন, হানিফ মিয়া ও তাঁর ভাই হাসান মিয়া একটি মাইক্রোবাসে করে এলাকায় আসেন। তাঁরা স্থানীয় মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে কোরবানির আয়োজন নিয়ে পরামর্শরত তাঁর সমর্থকদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় তাঁর দুই সমর্থক নিহত এবং আটজন আহত হন।

কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা হানিফ মিয়ার ভাই জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক হাসান মিয়া বলেন, ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে বিরোধের কারণে তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে এলাকা ছাড়া। তিনি তাঁর ভাইসহ পাঁচজন একটি প্রাইভেটকার নিয়ে এলাকায় আসেন কোরবানি দিতে। মাদ্রাসা এলাকায় এলে চেয়ারম্যানের চাচা রওশন, রুস্তম, রায়হান, মাওলা ও বিপ্লবসহ ১০ /১২ জন লোক তাঁদের বাধা দেন। তাঁরা গাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এক সময় গুলির ঘটনা ঘটে।

গুলি কে করেছে জানতে চাইলে হাসান মিয়া বলেন, হামলার শিকার হয়ে তিনি মাথায় আঘাত পেয়ে মাটিতে পড়ে যান। গুলি কে করেছে, তা তাঁর পক্ষে জানা সম্ভব হয়নি। তিনি দাবি করে বলেন, এ সংঘর্ষের ঘটনায় তিনি তার ভাই হানিফসহ তিনজন আহত হয়েছেন। তাঁরা ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি হবেন।

নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, স্থানীয় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কাইচাইল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুজন নিহত হয়েছেন। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।