রংপুর সদর আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী চান রেজাউল করিম রাজুকে

0
24
রংপুর সদর আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী চান রেজাউল করিম রাজুকে

জয়নাল আবেদীন: এরশাদের মৃত্যুর পর রংপুর সদর আসনশুণ্য । এই খালি আসন কে পূরোন করবেন তাই নিয়ে জল্পনা এবং কল্পনা শুরু হয়েছে রংপুরে ।তবে এরশাদের আসন জাতীয় পার্টিরই থাকবে, নাকি চলে যাবে আওয়ামী লীগের দখলে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। সম্ভাব্য প্রার্থী নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন দলের নেতাকর্মীরা তাদের মতামত তুলে ধরছেন । স্থানীয় সশিীল সমাজ এবং আওয়ামী লীগ মনে করছে, এরশাদের অবর্তমানে সদর আসন আর জাতীয় পার্টিকে ছাড় দেওয়া হবে না। দীর্ঘদিন থেকে রংপুর সদর আসনটি এরশাদের জাপা দখল করে রেখেছিলেন। তিনি এলাকায় না থাকার কারণে এখানকার উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়েছে। আগামীতে এখানে আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই। সদর উপজেলার সাবেক দর্শনা ইউপি চেয়ারম্যন ফতে আলী খোকন বলেন দীর্ঘদিন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ এই আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।কিন্তু আমরা সঠিক উন্নয়ন তার কাছে বুঝে পাই নি।এলাকার বিভিন্ন রাস্তা-ঘাটের এখনও অনেক বাজে অবস্থা। অন্যদিকে সদর আসনের আশপাশের আসন গুলোতে একটু চোখ ফিরালেই দেখা যাচ্ছে ক্যামন উন্নয়ন হয়েছে।প্রকৃত পক্ষে এরশাদ এর ব্যক্তিগত জনপ্রিয়তা থাকায় এবং আ’লীগের প্রার্থী না দেওয়ায় তিনি এই আসন থেকে এবারও সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।যেহেতু সদর আসনটি এখন শূন্য তাই আমরা চাই সরকার দলীয় একজন প্রার্থী কে। সরকার দলীয় প্রার্থী’র মধ্যে সদর আসনে কাকে চান? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রংপুর জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড: রেজাউল করিম রাজু আ’লীগের একজন প্রভাবশালী নেতা ও প্রধানমন্ত্রীর স্নেহ এবং আস্থাভাজন ব্যক্তি। সেই ক্ষেত্রে আ’লীগ থেকে যদি তাকে প্রার্থী ঘোষণা করা হয় তবে একদিকে তিনি যেমন বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন অপরদিকে সদর আসন বাসী তাদের উন্নয়ন সঠিক ভাবে বুঝে পাবে। এদিকে রংপুর সদর আসনে রাশেক রহমান আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য চৌধুরী খালেকুজ্জানের নামও শোনা যাচ্ছে এই আসনে মনোয়ন পেলে নির্বাচন করবেন তারা । অপরদিকে রংপুর সফরে এসে আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এলজিইডি প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, অংশগ্রহনমুলক নির্বাচন নিশ্চিত করতেই জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া রংপুর-৩ আসনের উপ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ একক প্রার্থী দিবে। এখানে মহাজোটবদ্ধভাবে নির্বাচন হবে না। এ্যাড:রেজাউল করিম রাজু ছাত্র জীবনে তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের অন্যতম একজন সদস্য ছিলেন এবং বর্তমানে তিনি রংপুর জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক।