কেন্দুয়ায় স্কুলছাত্রী অপহরণের ৫ দিনেও সন্ধান মিলেনি, গ্রেফতার ১

0
12
কেন্দুয়ায় স্কুলছাত্রী অপহরণের ৫ দিনেও সন্ধান মিলেনি, গ্রেফতার ১

হুমায়ুন কবির: নেত্রকোনা কেন্দুয়া উপজেলা আশুজিয়া জেএনসি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী দিপ্তী রাণী বিশ্বশর্মা নামে এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে কেন্দুয়া থানায় মামলা করেছেন ওই ছাত্রীর পিতা উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের ভটেরগাতী পাড়াদুর্গাপুর গ্রামের শিরীষ বিশ্বশর্মা। উক্ত মামলায় পুলিশ এজাহারভুক্ত সুজিত বর্মণ (২৫) নামে একজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছে। সুজিত উপজেলার আশুজিয়া গ্রামের মনোরঞ্জন বর্মণের পুত্র।
দিপ্তী রাণীর পিতা শিরীষ বিশ্বশর্মা কান্নাজড়িত কণ্ঠে জানান, অনেক কষ্টে আমার একমাত্র সন্তান দিপ্তী রাণীকে লেখাপড়া করাচ্ছিলাম। কিছুদিন পূর্বে আশুজিয়া জেএনসি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহপাঠি আশুজিয়া গ্রামের মনোরঞ্জন বর্মণের মেয়ে মনি রাণী বর্মণের সঙ্গে ফোন নম্বর নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় মনি রাণীর দুই ভাই প্রদীপ বর্মণ ও সুজিত বর্মণ নানা রকম হুমকিসহ ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। ফলে ৭দিন পর্যন্ত আমার মেয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ রাখে। পরে গত ১৬ জুলাই আমার মেয়ে স্কুলে এসে টিফিনের সময় স্কুল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর তার আর সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে ১৭ জুলাই প্রদীপ বর্মণ, সুজিত বর্মণ ও মনি রাণী বর্মণের নামে কেন্দুয়া থানায় অপহরণ মামলা করা হয়। ৫ দিনেও আমার মেয়ের সন্ধান পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা ওসি তদন্ত রফিকুল ইসলাম জানান, মেয়ের বাবা শিরীষ বিশ্বশর্মা ৩ জনের নামে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। সুজিত বর্মণ নামে একজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও জড়িতদের গ্রেফতারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।