না দেখে বন্যার ভয়াবহতা উপলব্ধি করা যাবেনা: সাবেক মন্ত্রী লতিফ বিশ্বাস

0
19
না দেখে বন্যার ভয়াবহতা উপলব্ধি করা যাবেনা: সাবেক মন্ত্রী লতিফ বিশ্বাস

মারুফা মির্জা: সাবেক মন্ত্রী, সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস বলেছেন, যমুনায় অব্যাহত পানি বাড়ছে যে কেউ এটা জানেন। কিন্তু বন্যায় যে সিরাজগঞ্জের ৫টি উপজেলার হাজার-হাজার ঘর-বাড়ি তলিয়ে মানুষ চড়ম কষ্টে দিনাতিপাত করছে। এটা না দেখলে বোঝা যাবেনা। দুর্ভোগে পড়া লাখ-লাখ মানুষ কতটা যে অসহায় তা উপলব্ধি করতে সরেজমিনে পরিদর্শন করতে হবে। তিনি শুক্রবার বিকেলে জেলার বেলকুচি, চৌহালী, এনায়েতপুর ও শাহজাদপুর উপজেলার বিভিন্ন বন্যা আক্রান্ত এলাকা পরিদর্শন কালে সাংবাদিকদের সাথে আলাপ কালে এসব কথা বলেন। লতিফ বিশ্বাস আরো বলেন, মাননীয় প্রধান মন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন, যার-যার অবস্থান থেকে নিজ এলাকার বন্যা দুর্গত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে। দেশের তথা বিশ্বের যেকোন মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়িয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কণ্যা শেখ হাসিনা পাশে দাঁড়িয়ে মানবতার মা উপাধী পেয়েছেন। তাই তার সাধারন অনুসারী হিসেবে আমরা তার মানবতার নির্দেশিত পথ অবলম্বন করছি। তবে সিরাজগঞ্জের চরা ল গুলোর বন্যার যে ভয়াবহ অবস্থা তাতে আমি খুবই ব্যাথিত। প্রতিটি ঘর-তলিয়ে গেছে। গবাদি পশু নিয়ে বিপন্ন অসহায় মানুষ। আমরা জেলা পরিষদ হতে একটি সমিক্ষা করছি। যাতে তাদের সহযোগীতায় আমরা পাশে দাঁড়াতে পাড়ি। তিনি আরো বলেন, এই বিপদে আমাদের যার-যার অবস্থান হতে সবারই অসহায় বানভাসীদের পাশে দাঁড়ানো উচিৎ। এসময় তার সাথে সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান গাজী আব্দুল হামিদ আকন্দ, বেলকৃুচি উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি গাজী লুৎফর রহমান মাখন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গোপাল চন্দ প্রামানিক, কামাল আহমেদ, শহিদুল ইসলাম তালুকদার,