গঙ্গাচড়া হাটের জায়গা বন্ধ করার পরিকল্পনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত

0
11
গঙ্গাচড়া হাটের জায়গা বন্ধ করার পরিকল্পনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত

পূর্ণ রায় রিপন: গঙ্গাচড়া হাটের তোহা বাজারের জায়গা বন্ধ করে ভূমি অফিস করার পরিকল্পনায় প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার সচেতন নাগরিকদের আয়োজনে গত সোমবার রাতে উপজেলা বাজারের জিরো পয়েন্টে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সাজু মিয়া। উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক জাহেদুল ইসলামের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, বি.আর.ডিবির সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা মাজহারুল ইসলাম লেবু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আব্দুল খালেক মেম্বার, মোস্তাফিজার রহমান, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ক্ষ্যান্ত রানী রায় প্রমুখ। বক্তারা বলেন গঙ্গাচড়া মডেল থানার সামনে গঙ্গাচড়া বাজারে শুধুমাত্র ৯৬ শতক জমির মধ্যে গড়ে উঠেছে তোহা বাজার। বর্তমান তোহা বাজার হিসেবে ব্যবহৃত ওই খাস জমি বিগত সময়ে একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের মালিকানাধীন জমি ছিল। প্রতিষ্ঠানটি গড়ে উঠেছিল ১৯১৭ সালে। যা ১৯৫৬ সালে তৎকালীন সরকারের নামে খাস খতিয়ানে রেকর্ড ভূক্ত হয়। সেখানে প্রায় ১০০ বছর থেকে হাটের দিন শনিবার ও বুধবার উপজেলার বাসিন্দারা কাঠের আসবাবপত্র, গরু ছাগল, হাঁস মুরগী, কবুতর ক্রয়-বিক্রয় করে। এছাড়া কৃষকরা তাদের উৎপাদিত ধান, পাট, তামাকসহ নানা জাতের ফল মূল বিক্রি করে। সম্প্রতি তোহা বাজারের ওই জায়গায় উপজেলা প্রশাসন উপজেলা ভূমি অফিস করার পরিকল্পনা করে। বিষয়টি জানাজানি হলে গঙ্গাচড়া হাটের তোহা বাজারের একমাত্র ওই জায়গাটি বন্ধ হওয়ার আশঙ্কায় উপজেলাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করে। উপজেলার সচেতন নাগরিকরা বলেন ওই জায়গাটি বন্ধ হলে আমাদের ক্রয়- বিক্রয়ের আর কোন জায়গা থাকবে না। সরকার হাট থেকে প্রাপ্ত মোটা অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হবে। তারা তোহা বাজারের ওই জায়গাটি বন্ধ না করে উপজেলা পরিষদ ক্যাম্পাসের ভিতরে উপজেলা ভূমি অফিস স্থাপনের দাবী জানান। গঙ্গাচড়ায় গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক গঙ্গাচড়া (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের গঙ্গাচড়া মডেল থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাদ্দাম হোসেন (২৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে। আটক সাদ্দাম রংপুর কোতয়ালী থানার হরিরাম মল বকসা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে। থানা পুলিশ জানায় গত সোমবার সন্ধ্যায় সাদ্দাম উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নের আরাজি জয়দেব গুচ্ছ গ্রামের পূর্ব পাশের্^র জমিতে গাঁজা বিক্রয় করতে থাকে। এ সময় গোপন সংবাদে জেলা পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের নির্দেশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) সাইফুর

রহমান সাইফ এর নেতৃত্বে গঙ্গাচড়া মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সুশান্ত কুমার সরকার, এস,আই আব্দুল ওয়াহাব সঙ্গীয় ফোর্সসহ মাদক ব্যবসায়ী সাদ্দামকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে ২০০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এ বিষয়ে গঙ্গাচড়া মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সুশান্ত কুমার সরকার জানান আটক মাদক ব্যবসায়ী সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মাদক আইনের মামলায় জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।