রংপুরে নেশার টাকা না পেয়ে নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন

0
65

জয়নাল আবেদীন: নেশার টাকা না পেয়ে নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে আফছার হোসেন উজ্জ্বল নামে এক মাদকসেবী। রোববার বিকেল তিনটার দিকে রংপুর নগরীর আলমনগর কলেজ রোডের মৎস্য ভবন এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানায়, উজ্জ্বলের পিতা-মাতা কুষ্টিয়ায় থাকলেও দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে আলমনগর মৎস্যভবন এলাকার নিজ বাড়িতে থাকেন তিনি। তার মাতা-পিতা কুষ্টিয়ায় মেয়ের বাড়িতে থাকেন। মাঝে মধ্যে রংপুরে আসেন তারা। কর্মে বেকার হলেও পিতার বাসা ও দোকান ভাড়া দিয়ে সংসার চালানো ও মাদক সেবন করেন তিনি। অনেক আগে থেকে মাদক সেবনের সাথে জড়িত থাকায় এক প্রকার বিকৃত মানষিকতা নিয়ে চলাচল করতেন উজ্জল । এলাকাবাসী জানায়, প্রায় সময়ই এই মাদক সেবনের টাকা নিয়ে অশান্তি লেগেই থাকতো তার পরিবারে। নেশার টাকা যোগাড় করতে না পেরে প্রতিনিয়ত এলাকায় নানান বিশৃঙ্খলা করতো। তবে টাকা না পেলে অন্যের থেকে বেশি নিজের শরীরের কোন না কোন ক্ষতি সাধন করতো সে। তার এমন কার্যকলাপের ফলে বাধ্য হয়ে নেশার টাকা পরিবার থেকে দিয়ে দেওয়া হত। রোববার সকালে অন্য দিনের মত নেশার টাকার জন্য বাড়িতে বিশৃঙ্খলা শুরু করে । কিন্তু কেউ তাকে টাকা না দিলে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় এলাকাবাসী ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেলে ভর্তি করায়। মেডিকেলে ১৫ নং ওয়ার্ডে তার চিকিৎসা চলছে এ বিষয়ে উজ্জলের স্ত্রী নিলুফা বেগম বলেন, সকালে টাকা চাইলে আমিও তাকে ১০০ টাকা দিয়েছিলাম। পরে আবার টাকা চাইলে আমি দিতে পারিনি। এ সময় সে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এর বেশি কিছু বলতে রাজি হননি তিনি । এ বিষয়ে রংপুর মেট্টোপলিটন পুলিশ কোতয়ালী জোনের সহকারী কমিশনার জমির উদ্দীন বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি ।