লক্ষ্মীপুরে চেয়ারম্যান পদে ২৩ জনের মনোনয়নপত্র জমা, বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি

0
55

রবিউল ইসলাম: তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে লক্ষ্মীপুরের পাঁচ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ২৩জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৬ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৯জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন মঙ্গলবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত নিজ নিজ উপজেলার রিটার্ণিং কর্মকর্তা ও সহকারি রিটার্ণিং কর্মকর্তার কাছে এসব প্রার্থীরা তাদের মনোনয়নপত্র জমাদেন। প্রত্যেকটি উপজেলায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর পাশাপাশি বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোননয়ন পত্র দাখিল করেন। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাদেকুল ইসলাম বুধবার সকালে সাংবাদিকদের জানান, চেয়ারম্যান পদে লক্ষ্মীপুর সদরে ৬জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১২জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭জন। রামগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে ৩জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১জন। রায়পুরে চেয়ারম্যান পদে ২জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন। কমলনগরে চেয়ারম্যান পদে ৯জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪জন। রামগতিতে চেয়ারম্যান পদে ৩জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এদিকে প্রত্যেকটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ছাড়াও বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। সদরে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আবুল কাশেম চৌধুরী, বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহউদ্দিন টিপু, সাধারণ সম্পাদক অব্দুল্লাহ আল নোমান, আওয়ামীলীগ নেতা মহি উদ্দিন বকুল, মো. দেলোয়ার হোসেন ও স্বতন্ত্র পদে বিএনপি নেতা ওয়াহিদুর রহমান। রামগঞ্জে আওয়ামীলীগ সমর্থিত মনির হোসেন চৌধুরী, বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আ ক ম রুহুল আমিন, স্বতন্ত্র সিরাজুল ইসলাম (এনপিপি)।

রায়পুরে আওয়ামীলীগ মনোনীত অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ, বিদ্রোহী প্রার্থী আওয়ামীলীগ নেতা ও বর্তমান চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন মাষ্টার। কমলনগরে আওয়ামীলীগ সমর্থিত এ কে এম নুরুল আমিন মাষ্টার ও রেবেকা মহসীন, বিদ্রোহী প্রার্থী যুবলীগের মেজবাহ উদ্দিন বাপ্পি, দিদার হোসেনসহ ৯ জন। তবে এই উপজেলায় আওয়ামীলীগের প্রকৃত প্রার্থী কে তা নিয়ে চলছে নানান জলনা কল্পনা। রামগতিতে আওয়ামীলীগ সমর্থিত অধ্যাপক আবদুল ওয়াহেদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী শরাফ উদ্দিন আজাদ সোহেল ও হারুন মোল্লা (বিকল্পধারা)। এ দিকে বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সমর্থকরা দাবী করেছেন, সুষ্ঠ নির্বাচন হলে জেলার অধিকাংশ উপজেলায় স্বতন্ত্র ও বিদ্রোহী প্রার্থীরা জয়ী হবে। তারা বলেন, ভোটের পরিবেশ ভালো থাকলে তাদের সমর্থকদের ভোট জয়যুক্ত করবে ভোটাররা। প্রসঙ্গত, ঘোষিত তফছিল অনুযায়ী লক্ষ্মীপুর সদর, রায়পুর, রামগঞ্জ, রামগতি ও কমলনগর উপজেলায় একযোগে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এতে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৬ ফেব্রুয়ারি, বাছাই ২৮ ফেব্রুয়ারি, প্রত্যাহার ৭ মার্চ এবং ভোটগ্রহণ করা হবে ২৪ মার্চ। লক্ষ্মীপুরের পাঁচ উপজেলায় মোট ভোটার ১২ লাখ ৩৩ হাজার ১৬৪ জন।